On the Eid day, the miscreants burnt the sleeping mother and two daughters with acid

On the Eid day, the miscreants burnt the sleeping mother and two daughters with acid

On Eid day (25/05/2020), a heinous acid attack occurred in Laxmipur district under Raipur upazila in Ludhua village. The perpetrator targeted to a mother and her two young daughters, while they were in deep sleep. The victims went to the local hospital for treatment and then referred to the tertiary level hospital for further treatment. The Acid Survivors Foundation expresses a strong solidarity for the victims and committed to provide all required assistance and continuing consultations with the local administration and hospital to ensure immediate medical care and legal support. We request all partners and stakeholders to extend their cooperation and solidary to the victims.
The Victims- no worries, we are by the side of you (Bangla: “Apnar Passhe Amra”).
#ApnarPassheAmra

Scholastica Hosts ASF’s Joyful Cafe and Survivors on International Women’s Day

Scholastica Hosts ASF’s Joyful Cafe and Survivors on International Women’s Day

On International Women’s Day, March 8 2020, Scholastica – Uttara Senior Campus, hosted ASF and its Joyful Cafe catering.  The event started off with a morning special Assembly with grade 8 & 9 students, and speeches from Principal Farah Ahmed and grade 7 student, Gazi Bushra Abedin.  The event highlighted women’s rights, social issues and things we should be celebrating and working towards as a community and school to ensure woman have their rightful stance as included citizens wherever they may be in society and world.  ASF’s Program staff, and acid survivors, Nusrat Jahan Nizum and Amina Khatun also shared some words of inspiration for the student body.  Various members of the senior faculty team were also in attendance of this event.

It was Joyful Cafe’s debut catering event at any organisation; snack items were sold over the students’ break and lunch time.  Announcements were made continuously throughout the day at the school to promote the cafe.  All revenue generated from the Cafe goes back into sustaining the cafe’s staff jobs, who are also survivors.

Other members in attendance of the day included staff members from ASF’s Admin and Clinical team and field placement student from York University, Canada.  Joyful Cafe’s Coordinator and Head Cook were also in attendance.

Thank you Scholastica and team for supporting our survivors, and sharing such an important day’s platform with us!  Onwards, and upwards.


ASF Organised School Campaign

ASF Organised School Campaign

A School Campaign event held in Daulatpur Bohumukhi High School of Belkuchi Union in Sirajganj district on 19 February 2020. It was organized by National Development Program (NDP) with the support of Acid Survivors Foundation (ASF). The project has been financing by Manusher Jonno Foundation/UK-Aid.  ‍Students, teachers, Project Officer of NDP and representatives of ASF attended in the event. The main purpose of the school campaign was to create awareness among the students about the consequence and horrors of acid, its Acts and punishment. Students and teachers of the school have become aware and learned more about gender based violence through attending this awareness campaign.

বগুড়ায় এসিডে আক্রান্তদের সর্বোচ্চ সহযোগিতা করা হবে- সদর ইউএনও

বগুড়ায় এসিডে আক্রান্তদের সর্বোচ্চ সহযোগিতা করা হবে- সদর ইউএনও

বগুড়া সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আজিজুর রহমান বলেছেন, প্রশাসনের জিরো টলারেন্স ভূমিকায় বর্তমান বাংলাদেশে অবৈধভাবে এসিডের অপব্যবহার রুখে দেওয়া হয়েছে এবং বর্তমানেও এর বিরুদ্ধে প্রশাসন কঠোর রয়েছে। কিন্তু যারা পূর্বেই এর শিকার হয়েছে তাদের পুনর্বাসনে সকলকে এগিয়ে আসতে হবে। আর এক্ষেত্রে বগুড়ায় এসিডে আক্রান্তের শিকার অসহায় মানুষদের উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সর্বোচ্চ সহযোগিতা নিশ্চিত করা হবে।

এসিড সারভাইভারস ফাউন্ডেশন (এএসএফ) এর আয়োজনে বুধবার সকালে সদর উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে দক্ষিণ এশিয় তরুণ নারী নেতৃত্ব তৈরি ও পরামর্শমূলক উদ্যোগ গ্রহণ প্রকল্পের আওতায় স্থানীয় সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের সেবা প্রদানকারী কর্মকর্তার সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সদর ইউএনও এসব কথাগুলি বলেন।

সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন এএসএফ প্রতিনিধি রুনা লায়লা এবং ভিডিও চিত্র প্রদর্শনের মাধ্যমে সার্বিক কার্যক্রম পরিবেশন করেন তরুণ নারী নেত্রী নুসরাত জাহান। সভায় মুক্ত আলোচনায় বক্তব্য রাখেন ফুলবাড়ি পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইন্সপেক্টর শফিকুল ইসলাম, উপজেলা সমবায় অফিসার আতিকুর রহমান, উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা আতাউর রহমান, উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা নাজিয়া শামস্, শিশু ও যুব সংগঠক সঞ্জু রায়, লাইট হাউজের রাকিবুল ইসলাম খান, ব্রাকের প্রতিনিধি মাসুদ রানা, সংস্থার তরুণ নেত্রী সুরাইয়া আক্তার, ছায়া আক্তার এবং রফা ইসলাম।

উল্লেখ্য, এএসএফ সংস্থাটি ১৯৯৯ সাল থেকে বাংলাদেশে চিরতরে এসিডের সহিংসতা বন্ধে কাজ করে যাচ্ছে যার আওতায় এসিড আক্রান্তদের বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান, পরোক্ষ আইনি সহায়তা প্রদান, পুনর্বাসন এবং জীবনমান উন্নয়নে ভূমিকা রাখা, শিক্ষা সহায়তা এবং আয়বৃদ্ধিমূলক কর্মকান্ড পরিচালনাসহ এই সহিংসতার শিকার ব্যক্তিদের অন্ধকার থেকে বের হয়ে আলোর পথে নিয়ে আসতে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করে আসছে। এখন পর্যন্ত বগুড়ায় প্রায় ১৫৭ জন বিভিন্ন কারণে এসিড সহিংসতার শিকার হলেও গত ৫ বছরে এই হৃদয়বিদারক সহিংসতা বগুড়ায় সংগঠিত হয়নি।

Source: pundrokotha