আজ রোজ বুধবার দুপুর ১২.০০ ঘটিকার সময় পুরুষ এবং ছেলেদের সংযুক্তিকরণ নেটওয়ার্ককে শক্তিশালী করার মাধ্যমে বাংলাদেশের নারী ও শিশুদের প্রতি সহিংসতা হ্রাসকরণ, নারী ও শিশুর প্রতি জেন্ডারভিত্তিক নির্যাতন প্রতিরোধে মিডিয়া তথা সাংবাদিক, সংবাদ সংস্থা (প্রিন্ট, ইলেক্ট্রেনিক্স), এর সাথে ‘‘নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ, বর্তমান প্রেক্ষাপট ও মিডিয়ার ভূমিকা’’ শীর্ষক বিষয়কে সামনে রেখে আলোচনা সভা পরিচালিত হয়।

জেন্ডারভিত্তিক ন্যায়বিচারের প্রচার: পুরুষ এবং ছেলেদের সংযুক্তিকরণ নেটওয়ার্ককে শক্তিশালী করার মাধ্যমে বাংলাদেশের নারী ও শিশুদের প্রতি সহিংসতা হ্রাসকরণ প্রকল্পের আওতায় ব্র্যাক এর সহযোগিতায় ও এসিড সারভাইভারস ফাউন্ডেশন এর আয়োজনে এই মিডিয়া মোবিলাইজেশন সভার আয়োজন করা হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জনাব সর্দার জাহাঙ্গীর হোসেন, নির্বাহী পরিচালক, এসিড সারভাইভারস ফাউন্ডেশন। এছাড়া উপস্থিত ছিলেন নারী ও শিশুর প্রতি নির্যাতন প্রতিরোধে কাজ করে এমন সমমনা প্রতিষ্ঠানের সাংবাদিক (প্রিন্ট, ইলেক্ট্রনিক্স/অনলাইন) ব্যক্তিবর্গ।
অনুষ্ঠানের শুরুতেই এসিড সারভাইভারস ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক জনাব সরদার জাহাঙ্গীর হোসেন উপস্থিত সকলকে শুভেচ্ছা জানান। এরপর তিনি সংক্ষিপ্ত প্রকল্প পরিচিতি ও মিডিয়া মোবিলাইজেশন-এর উদ্দেশ্য এবং কেন পুরুষ ও বালকের সম্পৃক্ততা প্রয়োজন তা উপস্থাপন করেন।
পরবর্তীতে উম্মুক্ত আলোচনা শুরু হয়। এতে বর্তমান প্রেক্ষাপটে নারী ও শিশুর প্রতি জেন্ডার ভিত্তিক যে সহিংসতা গুলি হচ্ছে সে বিষয়গুলি পরিলক্ষিত হয়। আলোচনার মধ্য দিয়ে আগত সাংবাদিকবৃন্দ এই পরিস্থিতে কি কি করণীয় রয়েছে সে বিষয়ে গঠনমূলক পরামর্শ প্রদান করেন। তাদের মতে, নারী ও শিশু নির্যাতন বন্ধে পারিবারিক শিক্ষা, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ভূমিকা, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান সমূহের ভূমিকা, জাতীয় মিডিয়া সংস্থাসহ সকল মিডিয়ার কার্যকর ভূমিকা, বাবা-মায়ের ইতিবাচক আচরণ, দৃষ্টিভঙ্গি, জেন্ডার সমতা এবং নৈতিক শিক্ষা, এই বিষয়গুলির উপর জোর দেওয়া। এছাড়া কিশোর ও যুব সমাজকে জেন্ডার এবং সহিংসতা প্রতিরোধ বা এর বিরুদ্ধে সচেতন এবং সংবেদনশীল করার জন্য প্রয়োজনীয় কর্মশালা, প্রশিক্ষণ এবং ক্যাম্পেইন আয়োজনের প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরা হয়েছে। সর্বোপরি আইনের প্রয়োগ ও বাস্তবায়ন এবং সেই সাথে অপরাধী ও তার পরিবারের দুর্দশা এবং নেতিবাচক পরিনতি সমাজের সামনে তুলে ধরার বিষয়েও আলোকপাত করেন। সভাপতির সমাপনী বক্তব্য প্রদানের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষনা করা হয়।
অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন তাহমিনা ইসলাম, কো-অর্ডিনেটর- কেস এ্যান্ড পার্টনারশীপ ম্যানেজমেন্ট।